,

ইজতেমায় আখেরি মোনাজাত: ‘হে আল্লাহ আমাদের মাফ করে দিন’

ঢাকা ব্যুরো:‘হে আল্লাহ আমাদের ঈমান বাড়িয়ে দিন, আমাদের মাফ করে দিন। হে আল্লাহ আমাদের হেদায়েত করুন, আমাদের জন্য হকের রাস্তা খুলে দিন। হে আল্লাহ আমাদেরকে আপনার কুদরত দিয়ে হেফাজত করুন। মায়ের পেটে বাচ্চা যেমন নিরাপদ থাকে আপনাদের বান্দাদের সেভাবে হেফাজত করন। হে আল্লাহ আমাদেরকে কবরের আজাব থেকে হেফাজত করুন।’ ৫৩তম বিশ্ব ইজতেমার দ্বিতীয় পর্বের আখেরি মোনাজাতে কান্নাজড়িত কণ্ঠে এমন আকুতি জানিয়েছেন তাবলিগের অন্যতম শীর্ষ মুরব্বি কাকরাইল মসজিদের পেশ ইমাম হাফেজ মাওলানা মুহম্মদ জোবায়ের। সকাল সাড়ে ১০টায় মোনাজাত শুরু করেন মাওলানা জোবায়ের। তিনি প্রথমে আরবিতে মোনাজাত করেন। এরপর ইজতেমার প্রথম পর্বের মতো দ্বিতীয় পর্বেও বাংলায় মোনাজাত পরিচালনা করেন।সকাল ১০টা ৪৫ মিনিটে মোনাজাত সম্পন্ন হয়। এদিন আখেরি মোনাজাতে অংশ নিতে ঢাকা ও পার্শ্ববর্তী বিভিন্ন জেলা থেকে মুসল্লিরা আখেরি মোনাজাতে অংশ নেয়ার জন্য সমবেত হন। সকাল থেকেই ট্রেন, বাস ও পায়ে হেটে ইজতেমা প্রাঙ্গণে জড়ো হন মুসল্লিরা। ফজর নামাজের শেষে আম বয়ান শুরু হয়। এরপর হেদায়তি বয়ান শেষে মহান আল্লাহর কাছে হাত তুলে ইহকালের কল্যাণ ও পরকালের মুক্তির জন্য মোনাজাতে শামিল হন।
বিদেশি নিবাসের পূর্বপাশে বিশেষ মোনাজাত মঞ্চ থেকে মোনাজাত পরিচালনা করেন মাওলানা মুহম্মদ জোবায়ের। মোনাজাতে বাংলাদেশসহ সারা দুনিয়ার মানুষের সুখ, শান্তি ও কল্যাণ কামনা করে দোয়া করা হয়। আখেরি মোনাজাতে ২০ থেকে ২৫ লাখ ধর্মপ্রাণ মুসল্লি অংশ নিয়েছেন বলে আয়োজকদের ধারণা। গত ১২ জানুয়ারি শুরু হয় ইজতেমার প্রথম পর্ব, শেষ হয় ১৪ জানুয়ারি।

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

প্রতিষ্ঠাতা: মরহুম কাজী মো: রফিক উল্যাহ, সম্পাদক: ইয়াকুব নবী ইমন, প্রকাশক: কাজী নাজমুন নাহার। সম্পাদক কর্তৃক জননী অফসেট প্রেস, ছিদ্দিক প্লাজা, করিমপুর রোড, চৌমুহনী, নোয়াখালী থেকে মূদ্রিত।
বার্তা, সম্পাদকীয় ও বানিজ্যিক কার্যালয়: ছিদ্দিক প্লাজা(৩য় তলা উত্তর পাশ), করিমপুর রোড, চৌমুহনী, নোয়াখালী। মোবাইল: সম্পাদক-০১৭১২৫৯৩২৫৪, ০১৮১২৩৩১৮০৬, ইমেইল-:: jatiyanishan@gmail.com, Emonpress@gmail.com
Developed By: Trust soft bd