,

রক্ষক যখন বক্ষক!

হাতিয়া প্রতিনিধি: হাতিয়ার হরনী ইউনিয়নের বয়ারচর মইনুদ্দিন বাজারে জামে মসজিদের পুকুর ব্যক্তিগত ভাবে কুক্ষিগত করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। ওই এলাকার মাইন উদ্দিন ওরফে মেম্বার নিজে মসজিদ কমিটির আজীবনের সভাপতি হয়েও এই অনিয়মে জড়িয়েছেন বলে স্থানীয়রা অভিযোগ করেছে। এ নিয়ে এলাকায় তোলপাড় চলছে।
অভিযোগে জানা গেছে, মসজিদের পুকুরের ওই মসজিদটি দীর্ঘদিন থেকে ব্যবহার করে আসছে স্থানীয় মুসল্লিরা। স্থানীয়দের প্রয়োজনে সরকারী অর্থায়নে এক সময় পুকুরটি খনন করা হয়। মাইন উদ্দিন মসজিদটির সভাপতি হওয়ার পরও তিনি কৌশলে তার পুত্র নুর উদ্দিনের নামে পুকুরটির একাংশ লিজ নিয়েছেন বলে অভিযোগ করা হয়। বর্তমানে মাইন উদ্দিন মেম্বার পুকুরটির পানি বিক্রি করে ও এক অংশ ভরাট করায় স্থানীয় মুসল্লিরা পুকুরটি ব্যবহারে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি হচ্ছে।
মুসল্লিরা প্রতিবাদ করলে মাইন উদ্দিন ও তার পুত্র নুর উদ্দিনের নেতৃত্বে মুসল্লিদের উপর হামলা করতে আসে। তাদের ভয়ে এলাকার কেউ প্রতিবাদ করতে সাহস পায়না। তিনি মসজিদের জমি ও ভিটির দায়ীত্বে থেকে মসজিদের নামে বন্দোবস্ত না নিয়ে নিজে স্বাক্ষর দিয়ে বিক্রি করে ও পুত্রের নামে বন্দোবস্ত করিয়ে পুকুরের পানি মাটি, মাছ ইত্যাদি ভোগ দখল করছেন। বর্তমানে পুকুরটি একটি অংশ ভরাট করার প্রস্তুতি নেয়ায় ভবিষ্যতে বাজারের ব্যবসায়ীরা ও মুসল্লিরা পুকুরটি ব্যবহার করতে অসুবিধা হবে মর্মে স্থানীয় প্রশাসনকে জানায় স্থানীয়রা। স্থানীয়দের অভিযোগের ভিত্তিতে উপজেলা নির্বাহা অফিসার খন্দকার রেজউল করিম ও সহকারী কমিশনার(ভূমি) এর নির্দেশে তহসিলদার বিষয়টি জানার জন্য সরেজমিন পরির্দশন করেছেন।
বয়ারচর প্রশাসনিক কমিটির প্রশাসক মুশফিকুর রহমান জানান, স্থানীয়দের মাধ্যমে বিষয়টি জানার পর আমি উভয় পক্ষকে শান্ত হতে বলেছি। তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়ার জন্য প্রশাসনকেও আমি অবহিত করেছি।
হাতিয়া সহকারী কমিশনার(ভূমি) বলেন, যেহেতু পুকুরটি মসজিদের মুসল্লিরা ব্যবহার করে তাই আমরা এটি মসজিদের জন্য স্থায়ী বন্দোবস্ত দেয়া যায় কিনা সে বিষয়টি দেখা হবে।
এ ব্যাপারে হাতিয়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার খন্দকার রেজাউল করিম জানান, বিষয়টি জানার পর তদন্ত করতে আমি প্রতিনিধি পাঠিয়েছি। রিপোর্ট আসার পর প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

প্রতিষ্ঠাতা: মরহুম কাজী মো: রফিক উল্যাহ, সম্পাদক: ইয়াকুব নবী ইমন, প্রকাশক: কাজী নাজমুন নাহার। সম্পাদক কর্তৃক জননী অফসেট প্রেস, ছিদ্দিক প্লাজা, করিমপুর রোড, চৌমুহনী, নোয়াখালী থেকে মূদ্রিত।
বার্তা, সম্পাদকীয় ও বানিজ্যিক কার্যালয়: ছিদ্দিক প্লাজা(৩য় তলা উত্তর পাশ), করিমপুর রোড, চৌমুহনী, নোয়াখালী। মোবাইল: সম্পাদক-০১৭১২৫৯৩২৫৪, ০১৮১২৩৩১৮০৬, ইমেইল-:: jatiyanishan@gmail.com, Emonpress@gmail.com
Developed By: Trust soft bd