March 18, 2018
লক্ষ্মীপুরে স্বামীর খোঁজে এসে ধর্ষণের শিকার গার্মেন্টস কর্মী

লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি: লক্ষ্মীপুরের স্বামীকে খুঁজতে এসে পাঁচ মাসের এক অন্তঃসত্ত্বা গার্মেন্টস কর্মী ধর্ষণের শিকার হয়েছেন। পরে ধর্ষকদের হাত থেকে বাঁচতে কৌশলে দৌড়ে পালিয়ে পাশের এক বাড়িতে আশ্রয় নেন। বুধবার সন্ধ্যায় নির্যাতিত ওই নারী সদর মডেল থানায় এসে অভিযোগ দায়ের করেন। এর আগে সোমবার রাতে লক্ষ্মীপুর পৌরসভার শাহপুর এলাকায় এক আইনজীবী সহকারীর ভাড়াকৃত মনোয়ারা ম্যানশনে ধর্ষণের ঘটনা ঘটে।
সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, বরগুনা জেলার চর দোওয়ানী এলাকার ২৫ বছর বয়সী গার্মেন্টস কর্মীর সঙ্গে জহিরুল ইসলামের তিন বছর আগে মোবাইল ফোনে মাধ্যমে পরিচয় হয়। পিকআপভ্যান চালক জহিরুল লক্ষ্মীপুর পৌরসভার সমসেরাবাদের আইয়ুব আলী পুলের বাসিন্দা বলে তার কাছে পরিচয় দেয়। কিছুদিন পর তারা বিয়ে করে চট্টগ্রামে ভাড়া বাসা নিয়ে বসবাস শুরু করে। সম্প্রতি স্ত্রী অন্তঃসত্ত্বা হলে জহিরুল তাকে এড়িয়ে চলার চেষ্টা করে। সবশেষ গত রোববার রাতে স্বামীর সঙ্গে মোবাইল ফোনে যোগাযোগ হলে তাকে লক্ষ্মীপুর আসতে বলেন। চট্টগ্রাম থেকে ভোরে রওনা দিয়ে তিনি দুপুরে লক্ষ্মীপুরের উত্তর তেমুহনীতে আসেন। এ সময় স্বামীর মোবাইল ফোন বন্ধ পেয়ে তিনি অপেক্ষা করছিলেন। একপর্যায়ে এক যুবক তার গতিবিধি দেখে সহযোগিতার আশ্বাস দিয়ে শাহপুর এলাকায় বোনের বাসায় নিয়ে যায়। রাত ১০টার দিকে অপরিচিত দুই যুবক ওই বাসায় এসে জোরপূর্বক তাকে ধর্ষণ করে। এ সময় তার শরীরের বিভিন্ন অংশে জখম করা হয়। একপর্যায়ে কৌশলে রাত ১২টার দিকে বাসা থেকে দৌড়ে পালিয়ে পাশের এক বাড়িতে আশ্রয় নেয়। পরে তিনি নির্যাতনের ঘটনাটি বর্ণনা করেন। বুধবার বিকাল ৪টার দিকে মনোয়ারা ম্যানশনে গিয়ে দেখা গেছে, ভবনের নিচতলার যে কক্ষের ধর্ষণের ঘটনা ঘটেছে-ওই দরজায় তালা ঝুলছে। তবে স্থানীয় কয়েকজন মহিলা ওই রাতে বাসাটিতে কয়েকজন পুরুষের আনাগোনা ও চিৎকারের বিষয়টি টের পেয়েছেন বলে জানিয়েছেন।
নির্যাতিত ওই নারী বলেন, আমার সর্বনাশ হয়ে গেছে। হাত-পা ধরে কাকুতি-মিনতি জানিয়েও তাদের অত্যাচার থেকে নিজেকে বাঁচাতে পারিনি। তারা শুধু আমাকে নির্যাতনই করেনি সঙ্গে থাকা ৫ হাজার ২০০ টাকা লুটে নেয় এবং মোবাইল ফোন ভেঙে ফেরত দিয়েছে। এখন আমি কার কাছে যাব? বাড়ির মালিক জামায়াত নেতা রুহুল আমিন পাটওয়ারী বলেন, বাসাটি আইনজীবী সহকারী ফৌরদৌস কয়েক মাস আগে ভাড়া নিয়েছে। তার বাড়ি সদরের পার্বতীনগরের মাছিমপুর গ্র্রামে। সেখানে একটি অনাকাঙ্খিত ঘটনা ঘটেছে বলে শুনেছি।
এ ব্যাপারে লক্ষ্মীপুর সদর মডেল থানার ওসি মোহাম্মদ লোকমান হোসেন বলেন, গার্মেন্টস কর্মীর অভিযোগটি পেয়েছি। ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। ঘটনাটি তদন্ত করে দোষীদের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে

Spread the love
আরো খবর


প্রতিষ্ঠাতা: মরহুম কাজী মো: রফিক উল্যাহ, সম্পাদক: ইয়াকুব নবী ইমন, প্রকাশক: কাজী নাজমুন নাহার। সম্পাদক কর্তৃক জননী অফসেট প্রেস, ছিদ্দিক প্লাজা, করিমপুর রোড, চৌমুহনী, নোয়াখালী থেকে মূদ্রিত।

বার্তা, সম্পাদকীয় ও বানিজ্যিক কার্যালয়: ছিদ্দিক প্লাজা(৩য় তলা উত্তর পাশ), করিমপুর রোড, চৌমুহনী, নোয়াখালী। মোবাইল: সম্পাদক-০১৭১২৫৯৩২৫৪, ০১৮১২৩৩১৮০৬, ইমেইল-:: jatiyanishan@gmail.com, Emonpress@gmail.com