,

মওদুদ আহমদ ভাঙ্গা খাট নিয়ে ফ্লোরে থাকা বছরের সেরা হাসির নাটক -ওবায়দুল কাদের

প্রতিনিধি: আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সড়ক পরিবহ ও সেতু মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, মওদুদ আহমেদ বলছেন তিনি নাকি পুটপাতে থাকবেন। সবাই জানেন মওদুদ আহমেদ ক্ষমতায় থাকাকালীন অবস্থায় তিনি প্রসাদ বানিয়েছেন। তারপরও তিনি বলছেন তিনি পুটপাতে থাকবেন। বর্তমানে মওদুদ আহমদের একটি বাড়ী বিদেশীদের কাছে ভাড়া দেয়া আছে। ওই বাড়ী থেকে তিনি প্রতি মাসে ৪ লাখ টাকা ভাড়া পান। তিনি বর্তমানে যে বাড়ীতে আছেন সেটাও একটা বিলাশ বহুল বাড়ী। মওদুদ আহমদ ভাঙ্গা খাট নিয়ে ফ্লোরে থাকছেন এটা তো বছরের সেরা হাসির নাটক। আর এই নাটকের প্রধান নায়াকের অভিনয় করছেন তিনি নিজেই।
মন্ত্রী শুক্রবার সন্ধায় তার নির্বাচনী এলাকা নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জ উপজেলার বসুরহাট পৌরসভা মিলনায়তনে উপজেলা আওয়ামী লীগের আয়োজনে ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ সব কথা বলেন।
মন্ত্রী বিএনপিকে উদ্দেশ্য করে বলেন, বাংলাদেশে জনগনকে সঙ্গে নিয়ে এখন আন্দোলন করার মত কোন বস্তুগত পরিস্থিতি বিরাজমান নেই। ২০০১ সালে বিএনপি ক্ষমতায় আসার পর আওয়ামী লীগের দলীয় নেতাকর্মীদের ঘরের ছাল, পুকুরের মাছ লুটপাট করে নিয়ে গেছে। আওয়ামী লীগের হাজার হাজার নেতাকর্মী বাড়ী ঘরে থাকতে পারেনি বিএনপির কর্মীদের অত্যাচার নির্যাতনে। এটা মাথায় রেখে আওয়ামী লীগ ও অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মীদের ঐক্যবদ্ধ ভাবে থাকতে হবে। বিএনপি যদি আবারও ক্ষমতায় আসে আরও ভয়াবহ পরিস্থিতি সৃষ্টি হবে। আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদেরকে উদ্দেশ্য করে বলেন, নিজেই দল করলে হবে না। আপনাদের ঘরের মহিলাদেরকে নৌকা মার্কায় ভোট দেয়ার জন্য বলতে হবে।
উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা খিজির হায়াতের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক নুরনবী চৌধুরীর সঞ্চালনায় বক্তব্য রাখেন, নোয়াখালী (৪) আসনের সাংসদ সদস্য একরামুল করিম চৌধুরী,  জেলা প্রশাসক মাহবুবুল আলম তালুকদার পুলিশ সুপার মোঃ ইলিয়াস শরীফ, জেলা আওয়ামীলীগ সভাপতি খায়রুল আনম চৌধুরী সেলিম, সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এডভেকেট শিহাব উদ্দিন শাহীন, বসুরহাট পৌরসভার মেয়র আবদুল কাদের মির্জা, উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান বাদল, ভাইস চেয়ারম্যান আজম পাশা চৌধুরী রুমেল প্রমূখ।
মন্ত্রী আরও বলেন, আগামী একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন সংবিধান অনুযায়ী হবে। কোন সহায়ক সরকারে অধীনে নির্বাচন হবে না। নির্বাচন করবেন নির্বাচন কমিশনার। সরকার শুধু নির্বাচন কমিশনারকে সহযোগিতা করবে। ওই সময় সকল আইন প্রয়োগকারী সংস্থা নির্বাচন কমিশনারের অধিনে থাকবে। সেনাবাহিনী যে ভুমিকা এটা নিদ্দিষ্ট করা আছে। যেখানে প্রয়োজন হয় সেখানে সেনাবাহিনী স্টাইকিং ফোর্স হিসেবে কাজ করবে নির্বাচন কমিশনারের কথা মতে। নির্বাচনকালীন সময়ে সরকারের কিছুই করা থাকবে না। সকার শুধু রুটিন ওয়াক রুটিন ওয়ার্ক কাজ করবে। চলমান কাজগুলো সকার করবে। নতুন কোন মেজর পিলিসি সরকার করবে না।

ইয়াকুব নবী ইমন
নোয়াখালী প্রতিনিধি
০১৭১২৫৯৩২৫৪

ইয়াকুব নবী ইমন, নোয়াখালী প্রতিনিধি:
আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সড়ক পরিবহ ও সেতু মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, মওদুদ আহমেদ বলছেন তিনি নাকি পুটপাতে থাকবেন। সবাই জানেন মওদুদ আহমেদ ক্ষমতায় থাকাকালীন অবস্থায় তিনি প্রসাদ বানিয়েছেন। তারপরও তিনি বলছেন তিনি পুটপাতে থাকবেন। বর্তমানে মওদুদ আহমদের একটি বাড়ী বিদেশীদের কাছে ভাড়া দেয়া আছে। ওই বাড়ী থেকে তিনি প্রতি মাসে ৪ লাখ টাকা ভাড়া পান। তিনি বর্তমানে যে বাড়ীতে আছেন সেটাও একটা বিলাশ বহুল বাড়ী। মওদুদ আহমদ ভাঙ্গা খাট নিয়ে ফ্লোরে থাকছেন এটা তো বছরের সেরা হাসির নাটক। আর এই নাটকের প্রধান নায়াকের অভিনয় করছেন তিনি নিজেই।
মন্ত্রী শুক্রবার সন্ধায় তার নির্বাচনী এলাকা নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জ উপজেলার বসুরহাট পৌরসভা মিলনায়তনে উপজেলা আওয়ামী লীগের আয়োজনে ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ সব কথা বলেন।
মন্ত্রী বিএনপিকে উদ্দেশ্য করে বলেন, বাংলাদেশে জনগনকে সঙ্গে নিয়ে এখন আন্দোলন করার মত কোন বস্তুগত পরিস্থিতি বিরাজমান নেই। ২০০১ সালে বিএনপি ক্ষমতায় আসার পর আওয়ামী লীগের দলীয় নেতাকর্মীদের ঘরের ছাল, পুকুরের মাছ লুটপাট করে নিয়ে গেছে। আওয়ামী লীগের হাজার হাজার নেতাকর্মী বাড়ী ঘরে থাকতে পারেনি বিএনপির কর্মীদের অত্যাচার নির্যাতনে। এটা মাথায় রেখে আওয়ামী লীগ ও অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মীদের ঐক্যবদ্ধ ভাবে থাকতে হবে। বিএনপি যদি আবারও ক্ষমতায় আসে আরও ভয়াবহ পরিস্থিতি সৃষ্টি হবে। আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদেরকে উদ্দেশ্য করে বলেন, নিজেই দল করলে হবে না। আপনাদের ঘরের মহিলাদেরকে নৌকা মার্কায় ভোট দেয়ার জন্য বলতে হবে।
উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা খিজির হায়াতের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক নুরনবী চৌধুরীর সঞ্চালনায় বক্তব্য রাখেন, নোয়াখালী (৪) আসনের সাংসদ সদস্য একরামুল করিম চৌধুরী,  জেলা প্রশাসক মাহবুবুল আলম তালুকদার পুলিশ সুপার মোঃ ইলিয়াস শরীফ, জেলা আওয়ামীলীগ সভাপতি খায়রুল আনম চৌধুরী সেলিম, সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এডভেকেট শিহাব উদ্দিন শাহীন, বসুরহাট পৌরসভার মেয়র আবদুল কাদের মির্জা, উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান বাদল, ভাইস চেয়ারম্যান আজম পাশা চৌধুরী রুমেল প্রমূখ।
মন্ত্রী আরও বলেন, আগামী একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন সংবিধান অনুযায়ী হবে। কোন সহায়ক সরকারে অধীনে নির্বাচন হবে না। নির্বাচন করবেন নির্বাচন কমিশনার। সরকার শুধু নির্বাচন কমিশনারকে সহযোগিতা করবে। ওই সময় সকল আইন প্রয়োগকারী সংস্থা নির্বাচন কমিশনারের অধিনে থাকবে। সেনাবাহিনী যে ভুমিকা এটা নিদ্দিষ্ট করা আছে। যেখানে প্রয়োজন হয় সেখানে সেনাবাহিনী স্টাইকিং ফোর্স হিসেবে কাজ করবে নির্বাচন কমিশনারের কথা মতে। নির্বাচনকালীন সময়ে সরকারের কিছুই করা থাকবে না। সকার শুধু রুটিন ওয়াক রুটিন ওয়ার্ক কাজ করবে। চলমান কাজগুলো সকার করবে। নতুন কোন মেজর পিলিসি সরকার করবে না।

Share Button

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

প্রতিষ্ঠাতা: মরহুম কাজী মো: রফিক উল্যাহ, সম্পাদক: ইয়াকুব নবী ইমন, প্রকাশক: কাজী নাজমুন নাহার। সম্পাদক কর্তৃক জননী অফসেট প্রেস, ছিদ্দিক প্লাজা, করিমপুর রোড, চৌমুহনী, নোয়াখালী থেকে মূদ্রিত।
বার্তা, সম্পাদকীয় ও বানিজ্যিক কার্যালয়: ছিদ্দিক প্লাজা(৩য় তলা উত্তর পাশ), করিমপুর রোড, চৌমুহনী, নোয়াখালী। মোবাইল: সম্পাদক-০১৭১২৫৯৩২৫৪, ০১৮১২৩৩১৮০৬, ইমেইল-:: jatiyanishan@gmail.com, Emonpress@gmail.com
Developed By: Trust soft bd