,

বেগমগঞ্জে নকল করার প্রতিবাদ করায় শিক্ষকদের ওপর হামলা মানববন্ধন ও স্বারকলিপি

noakhali-news-13-11-2017-01

স্টাফ রিপোর্টার: নোয়াখালীর বেগমগঞ্জ উপজেলার লতিফপুর উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রে নকলে বাধা দেওয়ায় গত রোববার দুই শিক্ষককে নকলকারির অভিভাকরা লাঞ্চিত করেছে। এতে লিটন চন্দ্র দাস নামে এক শিক্ষক গুরুতর আহত হয়। তাঁকে নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। অপর শিক্ষক নাহিদা আক্তার প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়েছে। গতকাল সোমবার দুপুরে এ ঘটনার প্রতিবাদে জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সামনে মানববন্ধন-সমাবেশ করেছে লাঞ্চিত শিক্ষকের বিদ্যালয়ের শিক্ষক ও শিক্ষার্থীরা।
মানববন্ধন-সমাবেশে বক্তব্য রাখেন, নরোত্তমপুর ইউনিয়ন উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. ইউছুফ নবী, ১৫ নম্বার শরীফপুর ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান বাহার উদ্দিন, শিক্ষক আবু জাফর, প্রাক্তন শিক্ষার্থী এডভোকেট এ.বি.এম ইউসুফ, বিদ্যালয় পরিচালনা পর্ষদের সদস্য আবদুল কাদের ও ডা. আবুল কালাম প্রমুখ।
বক্তারা বলেন, লাঞ্চিত দুই শিক্ষক নরোত্তমপুর ইউনিয়ন উচ্চ বিদ্যালয়ে শিক্ষকতা করেন। তারা জেএসসি লতিফপুর উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রে পরীক্ষা পরিদর্শক হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। গত সোমবার গণিত পরীক্ষার সময় কেন্দ্রের ভিতর নকল করার চেষ্টা করে শিক্ষার্থীরা। এ সময় এক ছাত্রীকে নকলে বাধা দেয় পরিদর্শক লিটন চন্দ্র দাস। পরে ঘটনার বিষয় ওই ছাত্রী বাহিরে জানিয়ে দেয়। এক পর্যায়ে লিটন চন্দ্র দাস ও অপর শিক্ষক নাহিদা আক্তারসহ হল থেকে বের হয়ে যাওয়ার সময় কেন্দ্র বাউন্ডারির মধ্যে লিটন চন্দ্র দাসকে বেদম মারধর করা হয়।
শিক্ষকদের একাধিক সূত্র জানায়, জেলার প্রায় সবগুলো কেন্দ্রে নকল চলছে। বেশিরভাগ কেন্দ্রে শিক্ষকরাও নকলে সহায়তা করছে। ভালো শিক্ষকরা অসহায় হয়ে পড়েছে। নকলে বাধা দিলে মানসিক ও শারীরিকভাবে লাঞ্চিত হতে হচ্ছে কিছু শিক্ষককে। প্রশাসনের কিছু কর্মকর্তাকেও অসৎ শিক্ষক ও সুপারগণ অবৈধভাবে বাধ্য করে ফেলেছে। এক্ষেত্রে দেখা গেছে উপজেলা নির্বাহী অফিসারও অসহায়। রাজনৈতিক চাপের কারণে এসব ঘটনা ঘটছে।
জানতে চাইলে বেগমগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার ফরিদা খানম শিক্ষক লাঞ্চিত হওয়ার অভিযোগ পাওয়ার কথা স্বীকার করেন। তিনি বলেন, দুই শিক্ষককে লাঞ্চিত করেছে বহিরাগতরা। অভিযুক্তদের গ্রেফতার করার জন্য তিনি বেগমগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাকে নির্দেশ দিয়েছেন। তবে শিক্ষক করা অভিযোগে অভিযুক্তদের নাম না থাকায় দ্রুত ব্যবস্থা নেয়া যাচ্ছে না।

Share Button

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

প্রতিষ্ঠাতা: মরহুম কাজী মো: রফিক উল্যাহ, সম্পাদক: ইয়াকুব নবী ইমন, প্রকাশক: কাজী নাজমুন নাহার। সম্পাদক কর্তৃক জননী অফসেট প্রেস, ছিদ্দিক প্লাজা, করিমপুর রোড, চৌমুহনী, নোয়াখালী থেকে মূদ্রিত।
বার্তা, সম্পাদকীয় ও বানিজ্যিক কার্যালয়: ছিদ্দিক প্লাজা(৩য় তলা উত্তর পাশ), করিমপুর রোড, চৌমুহনী, নোয়াখালী। মোবাইল: সম্পাদক-০১৭১২৫৯৩২৫৪, ০১৮১২৩৩১৮০৬, ইমেইল-:: jatiyanishan@gmail.com, Emonpress@gmail.com
Developed By: Trust soft bd