,

নোয়াখালী আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিস! বছরে রাজস্ব আয় প্রায় ২৯ কোটি টাকা ছাড়িয়ে

11

স্টাফ রিপোর্টার: নোয়াখালীতে প্রতিবছর প্রায় ৯০ হাজার লোক পাসপোর্ট নিচ্ছেন। আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিস সুত্র মতে বছরে ৮০ হাজারের ও অধিক লোক আবেদন করে ডিজিটাল (গজচ) পাসপোর্ট সেবা নিচ্ছেন।। সরকারী নিয়ম অনুযায়ী প্রয়োজনীয় কাগজপত্র ও ২ কপি পাসপোর্ট সাইজের ছবি সত্যায়িত করে ব্যাংকের মাধ্যমে নিধারিত ফি জমা দিয়েই পাসপোর্টের জন্য আবেদন করতে হয়। সেই হারে গড়ে এখানে প্রতিদিন ২৫০টি আবেদন ফরম জমা পড়ে। নিয়ম মেনে আবেদন করায় এখন আর পাসপোর্ট নিয়ে ভোগান্তি নেই বললেই চলে। পাসপোর্ট অফিসের তথ্যমতে ২০১৭ সালে ৮০ হাজারের উপরে গ্রাহকের কাছে পাসপোর্ট হস্তান্তর করা হয়েছে। আর সরকারের রাজস্ব আয় হয়েছে ২৯ কোটি ১৪ লাখ ৪৬ হাজার ৯ শত ১৫ টাকা। নোয়াখালী আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিসটি ৯ জুলাই ১৯৯৮ সালে স্থাপিত হয়। ২০১০ সালে বর্তমান সরকারের অধিনে একটি বহুতল ভবন নির্মান করে ঐ বছরের ১১ এপ্রিল এখানে এমআরপি কার্যক্রম শুরু হয়। বর্তমান সহকারী পরিচালক আল আমিন মৃধার মেধা, শ্রম আর দুরদর্শিতায় নোয়াখালী আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিসে শৃংখলা ফিরিয়ে আসায় গ্রাহক নিয়ম মেনে লাইনে দাঁড়িয়ে পাসপোর্ট জমা দিচ্ছেন। কোন হট্টগোল বা বাগবিতন্ডা নেই। শান্তি পুর্ণ পরিবেশে মানুষ পাসপোর্ট জমা দিয়ে নিদিষ্ট সময়ে পেয়েও যাচ্ছেন। কিন্তু কিছুদিন থেকে যান্ত্রিক ত্রুটির কারনে মানুষ নিদিষ্ট সময়ে পাসপোর্ট হাতে পাচ্ছেনা না। এ প্রসঙ্গে সহকারী পরিচালক আল আমিন মৃধার সঙ্গে ফোন আলাপ কালে বিষয়টি স্বীকার করে তিনি জানান, ঢাকা কেন্দ্রীয় সার্ভারে টেকনিক্যাল জটিলতার কারনে পাসপোর্ট গ্রাহকের কাছে নিদিষ্ট সময়ে পোছানো সম্ভব হচ্ছেনা বলে দুঃখ প্রকাশ করছি। বিগত ১মাস থেকে সারা বাংলাদেশে এ সমস্যার সৃষ্টি হয়েছে। সমাধানের চেষ্টা চলছে । যান্ত্রিক ত্রুটি মেরামতের কাজও চলছে। হয়তো আরো ১ মাস এ সমস্যা থাকতে পারে। তারপর আশা করছি আর সমস্যা থাকবেনা। অফিসের কর্মকর্তারা জানান, এর আগে এ অফিসে একটা সেন্টাল লিংক ছিল। যা অনেক সময় ডাউন থাকতো। এতে করে কাজ করতে অনেক সমস্যা হতো। আল আমিন মৃধা স্যারের জোরালো হস্তক্ষেপে এবং তিনি একাধিকবার প্রধান কার্যালয়ে অবহিত করায় বর্তমানে এখানে ২টি লিংক স্থাপন করা হয়েছে। যার ফলে ১টি ডাউন হলেও অন্যটি সয়ংক্রিয় ভাবে চালু হয়ে যায়। এখন কাজ করতে আর সমস্যা হয়না। এদিকে বর্তমান সহকারী পরিচালক আল আমিন মৃধা বিগত ২৪/১/২০১৬ইং তারিখে যোগদানের পর নোয়াখালী আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিসের শোভাবর্ধন করে সুন্দর রুপে সাজিয়েছেন । অফিসে ঢুকতে চোখে পড়ে সবুজ গাছ, ফুল ও ফলের গাছ, বাইরে ও ভিতরে এমনকি ভবনের ছাদে টবে সাজানো রয়েছে নানা রকমের ফুল আর দেশী বিদেশী সবুজ গাছপালা । কার্যালয়ের ভিতরে কাউন্টার থেকে শুরু করে কর্মকর্তাদের কক্ষ গুলি পরিস্কার পরিচ্ছন্ন একটি রুচিশীল পরিবেশ ফুটে উঠেছে। তার এ জাতীয় চিন্তাধারায় এবং পরিচ্ছন্ন পরিবেশে গ্রাহক সেবায় বিশেষ অবদান স্বরূপ তাকে এশিয়া ছিন্নমুল বাস্তবায়ন ফাউন্ডেশন’২০১৭ সম্মাননা সনদ প্রদান করে। এছাড়াও নোয়াখালী আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিস কার্যালয়ে অনলাইনে আবেদনপত্র গ্রহণ, অসুস্থ বা চলাফেলায় অক্ষম আবেদনকারীর জন্য হুইল চেয়ারের ব্যবস্থা করা, শারিরীকভাবে অক্ষম ও বৃদ্ধ আবেদনকারীদের জন্য অফিসের নিচ তলায় আলাদা ওয়ার্ক স্টেশন স্থাপন, অফিসে অতিরিক্ত হেল্প ডেস্ক স্থাপন করে সেবার নতুন দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন তিনি। জনসাধারণের কাঙ্খিত সেবা প্রদানে সফলতা ও অন্যান্য উন্নয়নমূলক কর্মকান্ডের জন্য পাসপোর্ট অধিদপ্তরের মহাপরিচালক মেজর জেনারেল মোঃ মাসুদ রেদোয়ান-পিএসসি আধা সরকারি পত্রের মাধ্যমে আলা আমিন মৃধাকে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন।

Share Button

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

প্রতিষ্ঠাতা: মরহুম কাজী মো: রফিক উল্যাহ, সম্পাদক: ইয়াকুব নবী ইমন, প্রকাশক: কাজী নাজমুন নাহার। সম্পাদক কর্তৃক জননী অফসেট প্রেস, ছিদ্দিক প্লাজা, করিমপুর রোড, চৌমুহনী, নোয়াখালী থেকে মূদ্রিত।
বার্তা, সম্পাদকীয় ও বানিজ্যিক কার্যালয়: ছিদ্দিক প্লাজা(৩য় তলা উত্তর পাশ), করিমপুর রোড, চৌমুহনী, নোয়াখালী। মোবাইল: সম্পাদক-০১৭১২৫৯৩২৫৪, ০১৮১২৩৩১৮০৬, ইমেইল-:: jatiyanishan@gmail.com, Emonpress@gmail.com
Developed By: Trust soft bd