নোয়াখালীতে ৭টি হাসপাতালে ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযান, জরিমানা

স্টাফ রিপোর্টার: নোয়াখালীতে ৭টি হাসপাতাল-ক্লিনিক-ডায়াগনস্টিক সেন্টারে ভ্রাম্যমাণ আদালতে অভিযান পরিচালনা করে ৩লক্ষ ৩৩হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।
জানা যায়, বুধবার দুপুরে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে সদর উপজেলার হাসপাতাল রোড এলাকায় প্রাইভেট হাসপাতাল, ক্লিনিক, ডায়াগনস্টিক সেন্টারে নোয়াখালীর বিজ্ঞ অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট কামাল হোসেনের তত্ত্বাবধানে এ্যাক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট মো: রোকনুজ্জামান খানের নেতৃত্বে সদর উপজেলার হাসপাতাল রোড এলাকায় মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করেন।
অভিযানে নোয়াখালী প্রাইভেট হাসপাতালে জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইন ২০০৯ এর ৩৮, ৩৯, ৪০, ৫২ ও ৫৩ ধারায় ১ (এক) লক্ষ টাকা, সিটি হাসপাতালকে জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইন ২০০৯ এর ৩৮, ৩৯, ৫২ ও ৫৩ ধারায় ৮০ (আশি) হাজার টাকা, আল মদিনা ডায়াগনস্টিক সেন্টারকে ড্রাগ আইন ১৯৪০ এর ২৭ ধারায় ৪০ (চল্লিশ) হাজার টাকা, এ্যামাস ডায়াগনস্টিক সেন্টারকে জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইন ২০০৯ এর ৩৮, ৩৯, ৫২ ও ৫৩ ধারায় ৫৫ (পঞ্চান্ন) হাজার টাকা, গ্রীণ ডায়াগনস্টিক সেন্টারকে ড্রাগ আইন ১৯৪০ এর ২৭ ধারায় ৪৫ (পয়তাল্লিশ) হাজার টাকা, গুড হিল হাসপাতালকে মেডিক্যাল প্রেকটিস এবং বেসরকারি ক্লিনিক ও ল্যাবরেটরি (নিয়ন্ত্রণ) অধ্যাদেশ ১৯৮২ এর ১৩ধারায় ৫ (পাঁচ) হাজার টাকা, ঊর্মি ছাবি এন্ড লাইট হাউজকে বাংলাদেশ পরিবেশ সংরক্ষণ আইন ১৯৯৫ এর ১৫ (১নং টেবিলের ৪-এর ক) ধারায় ৮ (আট) হাজার টাকা। সর্বমোট ৩ লক্ষ ৩৩ হাজার টাকা।
এ ব্যাপারে এ্যাক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট মো: রোকনুজ্জামান খান জানান, মূল্য তালিকার অধিক মূল্যে সেবা প্রদান, মূল্য তালিকা প্রদর্শন না করা, প্রয়োজনীয় সংক্ষক ডাক্তার-নার্স হাসপাতালে না রাখা, টেকনিশিয়ান ছাড়া ল্যাব পরিচালনা, সরকার কর্তৃক লাইসেন্স না নেওয়া, লাইসেন্সের নির্দেশাবলীর লঙ্গন, মেয়াদ উত্তীর্ণ ঔষধ ও সেবা পণ্য সেবার উদ্দেশ্যে সংরক্ষণ, অপারেশন থিয়েটারের অব্যবস্থাপনা ও অপরিছন্নতা, সেবা গ্রহীতার জীবন ও নিরাপত্তা বিপন্নকারী কার্য করা, অবহেলা কার্য করার জন্য তাদেরকে এসব জরিমানা দন্ড আরোপ করা হয়। জনস্বার্থে ভবিষ্যতে এই ধরনের অভিযান অব্যাহত থাকবে।
আদায়কৃত টাকা সরকারী কোষাগারে জমা করার জন্য এক্সিকিউটিভ কোর্ট পেশকার শাহাদৎ হোসেন শুভকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। অভিযানে আরো উপস্থিত ছিলেন
ডিজি’র প্রতিনিধি সিভিল সার্জন কার্যালয় নোয়াখালীর মেডিক্যাল অফিসার ডা. দিপন চন্দ্র মজুমদার, বিএমএ প্রতিনিধি ডা. আরাফাত, ড্রাগ সুপার ইমরান হাসান, বাংলাদেশ পরিবেশ সংরক্ষণ কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক আব্দুল মালেক, র‌্যার্বের লক্ষ্মীপুর ক্যাম্পের সহকারী পরিচালক প্রণব, উপ-পরিদর্শক আব্দুস শুক্কুরের ও সুধারাম থানা পুলিশ।

Share Button

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *