নোয়াখালীতে ২ খুন, আটক ৩

প্রতিনিধি: নোয়াখালীতে গত ২৪ ঘন্টায় দুই জন খুনের শিকার হয়েছেন। সদর উপজেলায় পৃথক এই খুনের ঘটনায় পুলিশ ৩ জনকে আটক করেছে।
জানা গেছে, উপজেলার নেয়াজপুর ইউনিয়নের বাহাদুরপুর গ্রামে শনিবার দুপুরে সম্পত্তি সংক্রান্ত বিরোধের জেরে প্রতিপক্ষের হামলায় আমিন উল্যাহ(৬৫) নামে এক বৃদ্ধ নিহত হয়। এ ঘটনায় সঙ্গে সম্পৃক্ততার অভিযোগে পুলিশ প্রতিবেশি তাজুল ইসলাম তাজু ও সেলিম নামের ২ জনকে আটক করেছে।
নিহতের ছেলে ইছহাক রাজু জানান, একই বাড়ির আটককৃত তাজু, সেলিমদের সঙ্গে তাদের দীর্ঘদিন থেকে জায়গা-জমি নিয়ে বিরোধ চলে আসছে। এ নিয়ে দুপুরে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে তাজু ও সেলিম তার বাবাকে শ্বাধরোধ করে হত্যা করে।
অপরদিকে উপজেলার দাদপুর ইউনিয়নের উত্তর হুগলি গ্রামে চার লাখ টাকা মুক্তিপণ না পেয়ে মেহরাজ হোসেন(৩০) নামের এক যুবককে হত্যা করেছে দূর্বৃত্তরা। এ ঘটনায় জড়িত সন্দেহে পুলিশ মামুন নামের এক যুবককে আটক করেছে। নিহত মেহরাজ হোসেন সদর উপজেলার দাদপুর ইউনিয়নের উত্তর হুগলি গ্রামের শাহাজাহানের ছেলে।
মেহরাজের বাবা শাহজাহান জানান, গত রোববার সকালে একই এলাকার ইউসুফ মিয়ার ছেলে মামুন হোসেন মোটরসাইকেল যোগে মেহরাজকে নিয়ে যায়। এরপর মেহরাজ ফিরে না আসায় খোঁজাখুঁজি করে না পেয়ে সোমবার সুধারাম মডেল থানায় জিডি করে মেহরাজের ভাই মাহবুব হোসেন। পরে মেহরাজের ফোন থেকে কল করে চার লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি করা হয়।
মুক্তিপণের টাকা না দেয়ায় মেহরাজকে হত্যার পর দূর্বৃত্তরা বস্তায় ঢুকিয়ে লাশ নোয়াখালী-লক্ষ্মীপুর সীমান্তবর্তী টক্কার পুলের নিচে ফেলে যায়। বৃহস্পতিবার রাতে পুলিশ অজ্ঞাত হিসেবে মরদেহটি উদ্ধার করে। পরে আমরা হাসপাতালে গিয়ে মেহরাজের লাশ সনাক্ত করি। যোগ করেন খুনের শিকার মেহরাজের পিতা। তিনি ছেলের খুনিদের বিচার দাবী করেন।
এ ব্যাপারে নোয়াখালী সদর থানার অফিসার ইনচার্জ(ওসি) আনোয়ার হোসেন বলেন, পৃথক খুনের ঘটনায় থানায় মামলা হয়েছে। পুলিশ আটককৃত ৩ জনকে জিজ্ঞাসাবাদ করছে।

Share Button

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *