বিদ্রোহীতে বেকায়দায় নোয়াখালী আওয়ামী লীগ

স্টাফ রিপোর্টার: আসন্ন উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে নোয়াখালীর সাতটি উপজেলার মধ্যে ৬ টিতেই আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী রয়েছে। এতে বেকায়দায় পড়েছে দলের নেতাকর্মীদের পাশাপাশি ভোটাররাও। এছাড়া জাসদ ও জাতীয় পার্টির প্রার্থীও রয়েছে।
জানা যায়, চাটখিল উপজেলায় আওয়ামী লীগের প্রার্থী বর্তমানে উপজেলা চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর কবির, সেখানে একই দলের বিদ্র্রোহী প্রার্থী হিসেবে রয়েছেন বিল্লাল চৌধুরী। তিনি উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক। তাছাড়া জাসদের হারুনুর রশিদ, স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে রহিম উদ্দিন ও ফজলুল করিম ভোটে প্রতিদ্বন্দিতা করবেন। সেনবাগ উপজেলায় আওয়ামী লীগের প্রার্থী জাফর আহম্মদ চৌধুরী। এখানে একই দলের বিদ্রোহী প্রার্থী হলেন জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক শিল্প ও বাণিজ্য বিষয়ক সম্পাদক লায়ন এস. এম জাহাঙ্গীর আলম মানিক। কোম্পানীগঞ্জের আওয়ামী লীগের প্রার্থী হলেন মোহাম্মদ সাহাবুদ্দিন, তার সাথে বিদ্রোহী প্রার্থী হিসেবে রয়েছেন বর্তমান চেয়ারম্যান ও জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মিজানুর রহমান বাদল।
এ উপজেলার অন্য ২ প্রার্থী হলেন জাতীয় পার্টির আবদুল লতিফ ও স্বতন্ত্র প্রার্থী রেজাউল হক লিটন। কবিরহাট উপজেলায় আওয়ামী লীগের প্রার্থী বর্তমান উপজেলা চেয়ারম্যান কামরুন নাহার শিউলী। একই দলের বিদ্র্রোহী প্রার্থী হিসেবে রয়েছেন জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য আলাবক্স টিটু। তিনি জেলা পরিষদের সদস্য পদ থেকে পদত্যাগ করে নির্বাচনে প্রার্থী হয়েছেন। এছাড়া স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে রয়েছেন খোদেজা আক্তার। সোনাইমুড়ি উপজেলায় আওয়ামী লীগের প্রার্থী খন্দকার রুহুল আমিন। এখানে বিদ্রোহী প্রার্থী হিসেবে ভোট করবেন উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান আফম বাবুল। এছাড়া স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে রয়েছেন মমিনুল ইসলাম ও আক্তার হোসেন।
বেগমগঞ্জ উপজেলায় আওয়ামী লীগের প্রার্থী হলেন জেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ওমর ফারুক বাদশা। এখানে একই দলের বিদ্রোহী প্রার্থী হিসেবে ভোট করবেন উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান ভিপি মোহাম্মদ উল্যাহ। এছাড়া জাতীয় পার্টির প্রার্থী আবদুর রব নির্বাচন করছেন। জেলার সিংহভাগ উপজেলায় দলের একাধিক প্রার্থী থাকায় আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা দ্বিধাবিভক্ত হয়ে পড়েছেন। কেউ আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থীর পক্ষে, কেউ আবার বিদ্রোহী প্রার্থীর পক্ষে ভোট চাইছেন। ফলে দলের পাশাপাশি ভোটাররাও পড়েছেন বেকায়দায় ।

Share Button

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *