স্বাধীনতা দিবসে হাতিয়ায় ব্যবসায়ীকে পুলিশি নির্যাতনের অভিযোগ

হাতিয়া প্রতিনিধি: নোয়াখালীর হাতিয়ায় মালিকানাহীন ছাগল পুলিশ ফাঁড়িতে জমা না দেওয়ায় পুলিশের নির্যাতনের শিকার হয়েছেন মো: ইয়াছিন নামের এক ব্যবসায়ী। আহত ব্যবসায়ীকে মঙ্গলবার রাতে নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। উপজেলার হরনি বয়ারচর ইউনিয়নের শরিয়তপুর সমাজের টাংকির ঘাট এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।
জানা গেছে, একটি মালিকানাহী ছাগল কয়েকদিন এলাকায় ঘুরোঘুরির পর ব্যবসায়ী ইয়াছিনের বাড়িতে আশ্রয় নেয়। তিনি ছাগলটির প্রকৃত মালিককে প্রমাণসহ এসে ছাগলটি নেয়ার জন্য মাইকিং করেন। ওই সমাজের আরিফ ও মহি উদ্দিন নামের দুজন ছাগলটি নিজেদের দাবী করলে বেকায়দায় পড়েন ব্যবসায়ী ইয়াছিন। তিনি ছাগলটি হাতিয়ার মাইনউদ্দিন বাজার পুলিশ ফাঁড়িতে ছাগলটি পৌঁছানোর মনোস্থির করেন। এরিমধ্যে পাশ্ববর্তি লক্ষীপুর নিয়ন্ত্রীত টাংকি পুলিশ ফাঁড়ির এএসআই আহসান হাবিবের নেতৃত্বে একদল পুলিশ ইয়াছিনকে আটক করে ব্যাপক মারধর করে। স্থানীয়রা ওই ব্যবসায়ীকে উদ্ধার করে নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করে। এ ঘটনায় পুলিশের প্রতি সাধারণ মানুষের ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে।
আহত ব্যবসায়ী ইয়াছিন জানান, আমার পাশ্ববর্তি পুলিশ ফাঁড়ি মাইন উদ্দিন বাজার। তাই ছাগলটি সেখানেই জমা দিতে চেয়েছিলাম। কিন্তু রহস্যজনক কারণে টাংকি পুলিশ ফাঁড়ির সদস্যরা আমাকে মারধর করেছে।
এ ব্যাপারে অভিযুক্ত পুলিশের এএসআই আহসান হাবিবের সাথে যোগাযোগ করলে তিনি বলেন, ভাই আমি একটু ব্যাস্ত পরে কথা বলবো।

Share Button

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *