নৌকার নতুন প্রজম্ম!

ইয়াকুব নবী ইমন:জাহিদ হাসান শুভ। বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের এক তারুণ্যদিপ্ত সক্রিয় কর্মী। নোয়াখালীর বেগমগঞ্জ উপজেলার বেগমগঞ্জ ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি। বলতে গেলে রক্তে মাংসে, ধ্যান-ধারনায় আর অস্তিত্বে বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ। বাবা ফিরোজ আলম নান্নুও স্বাধীনতা উত্তর আওয়ামী লীগের এক বলিষ্ঠ কর্মী আর জাতীর জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের অন্ধ ভক্ত ছিলেন। এখনো দলের প্রয়োজনে নিবেদিত প্রাণ। শুভর পিতা একজন সফল জনপ্রতিনিধিও । দুই দুই বারের বেগমগঞ্জ ইউনিয়নের নির্বাচিত জনপ্রিয় চেয়ারম্যান ছিলেন। বাবার মতো শুভও নিজেকে তৈরী করতে শুরু করেছেন।
ইতিহাসের শেষ্ঠ বাঙ্গালী বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও জননেত্রী শেখ হাসিনার রাজনৈতিক আদর্শে উদ্ভুদ্ধ হয়ে জড়িয়ে পড়েন ছাত্র রাজনীতিতে। মফস্বল থেকে থেকে উঠে আসা শুভ অল্প দিনেই জয় করেছেন দলের তৃণমূল থেকে জেলা ও উপজেলা পর্যায়ের নেতাকর্মীদের মন। শুভ বেগমগঞ্জ ইউনিয়ন ছাত্রলীগের এক সময় আহবায়ক পরবার্তিতে সভাপতি পাশাপাশি বঙ্গবন্ধু ছাত্র পরিষদ বেগমগঞ্জ উপজেলা শাখার সাধারন সম্পাদকের দায়ীত্ব পালন করেছেন। এছাড়াও তিনি নোয়াখালী কলেজ ইন্টার ক্যাম্পাসের সাবেক সদস্য, সদ্য স্থগিত হওয়া বেগমগঞ্জ উপজেলা ছাত্রলীগের যুগ্ম আহবায়ক ছিলেন। এছাড়াও তিনি এলাকার বিভিন্ন সামাজিক, সাংস্কৃতিক সংগঠনের সথে জড়িত। সংযুক্ত আছেন গুরুত্বপূর্ন আমার.এমপি ডটকমের সাথে। স্থানীয় এমপি মামুনুর রশিদ কিরণের এম্বেসেডার হিসেবেও কাজ করছেন শুভ।
বর্তমানে শুভ ও তার বেগমগঞ্জ ইউনিয়ন ছাত্রলীগ খুবই আলোচিত। আর এই আলোচনা ছাত্রলীগের কোন দূর্নামের জন্য নয়, শুভ কাজে শুভ সব সময় এক পা এগিয়ে। আর যেখানে অন্যায়, অবিচার সেখানে শুভ যেন নির্যাতিনের শিকার অসহায়দের পাশে আশির্বাদ হিসেবে আবির্ভূত হন। বেগমগঞ্জ ইউনিয়নের আমানতপুর গ্রামের সম্ভ্রান্ত মুসলিম পরিবারে জম্ম নেয়া অজপাড়া গায়ের এক সময়ের ছাত্রলীগ কর্মী শুভ বাবার মতোই এলাকাবাসীর জন্য সব সময় শুভ সংবাদ নিয়ে আসেন। নানাবিধ কর্মকান্ডের কারণে তার স্থান আজ দলের ও এলাকাবাসীর কাছে অনেক উপরে। শুধু বেগমগঞ্জ ইউনিয়ন ছাত্রলীগ নয়, পুরে উপজেলাব্যাপী রয়েছে শুভর শুভাকাঙ্খি। দলের বড়দের কাছে ছোট্ট শুভ আর ছোটদের কাছে শ্রদ্ধার পাত্র শুভ। তার কর্মকান্ডেই তাকে উপরে উঠতে সাহায্য করছে।
ছাত্রলীগের পক্ষ থেকে প্রতি রমজান মাসে এতিম শিশুদের ইফতার ও খাওয়ার ব্যবস্থা করা, ছাত্রলীগের ২৯ তম জাতীয় সম্মেলন সফল হওয়ায় শুকরিয়া আদায় করে মাদ্রাসার শিক্ষার্থীদের মাঝে কোরআন শরিফ বিতরণ ও নির্বাচিত সভাপতি-সম্পাদকে শুভেচ্ছা জানিয়ে ব্যাপক সাংগঠনিক প্রচারনা চালানো, ছাত্রলীগের পক্ষ থেকে এলাকার স্কুল কলেজের সাধারন শিক্ষার্থীদের মাঝে শিক্ষা উপকরন বিতরণ, বৃক্ষ রোপন অভিযান ও জাতীর জনক বঙ্গবন্ধুর সংক্ষিপ্ত জীবনী প্রদান ও আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়। শুভর বেগমগঞ্জ ছাত্রলীগ সবচেয়ে বেশি আলোচিত হয় সড়ক দূর্ঘটনা রোধে সড়ক-মহাসড়কের পাশে অবস্থিত বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ও গুরুত্বপূর্ন অফিসের সামনে জেব্রা ক্রসিং দেওয়ার মাধ্যমে। এই কাজটি প্রসংশার দাবী রাখে।
যা ছাত্রলীগ নেতাকর্মী ও দলের সবার কাছেও গ্রহনযোগ্যতা পায়। সংগঠনিক তৎপরায় সারা দেশের মধ্য বেগমগঞ্জ ইউনিয়ন ছাত্রলীগই একমাত্র ইউনিট যা বলার অপেক্ষা রাখেনা। এটি সম্ভব হয়েছে শুভর মতো বঙ্গবন্ধুর আদর্শের একজন সৈনিকের সভাপতি হিসেবে থাকার কারণে এমনটাই মনে করেন স্থানীয় ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা।
দলের প্রয়োজনে জীবণবাজি রেখে রাজপথে থাকতেও দেখা যায় এই জাহিদ হাসান শুভকে। আবার নোবিপ্রবিতে ভর্তি হতে আসা শিক্ষার্থীদের জন্য রাতভর কাজ করে অসুস্থ হয়ে বিছানায় পড়ে থাকতেও দেখা যায় এই শুভকে। অলরাউন্ডার এই ছাত্রনেতার বর্তমান কর্মকান্ডেই বলে দিচ্ছে ভবিষ্যতে দলের প্রয়োজনেই তার মতো পরীক্ষিত নেতা অপরিহায্য।
বেগমগঞ্জ ইউনিয়ন ছাত্রলীগ নিয়ে মন্তব্য করতে গিয়ে বেগমগঞ্জ উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক মামুনুর রশিদ কিরণ এমপি বলেন, বেগমগঞ্জ উপজেলার স্বাগত ইউনিয়ন বেগমগঞ্জ। এই বেগমগঞ্জ ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি শুভ ছেলেটা দলের জন্য কাজ করার বিষয়টি সবার কাছে লক্ষনীয়। বঙ্গবন্ধু ও জননেত্রী শেখ হাসিনাকে ভালোবেসেই সে দলের জন্য কাজ করছে। তাকে দেখে অনেকেই উদ্বুদ্ধ হয়ে ছাত্রলীগের রাজনীতিতে জড়াচ্ছে। সততা, কর্ম, একনিষ্ঠতা, দলের প্রতি আন্তরিকতা সবই শুভর মধ্যে বিদ্যমান। আমি তার মঙ্গল কামনা করছি।
এক প্রতিক্রিয়ায় বেগমগঞ্জ ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি জাহিদ হাসান শুভ বলেন, আমি কারো বাহবা পাওয়ার জন্য কাজ করছিনা। আমার কোন চাওয়া পাওয়া নাই। দেশ ও দশের প্রয়োজনে আজীবণ কাজ করে যেতে চাই।

Share Button

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *