প্রধানমন্ত্রীর গুডবুকে থাকা জাহাঙ্গীর আলম হতে চান নৌকার মাঝি

ইয়াকুব নবী ইমন: নোয়াখালী-১ (চাটখিল-সোনাইমুড়ী) আসনে নৌকার মাঝি হতে চান প্রধানমন্ত্রীর ব্যক্তিগত সহকারী জাহাঙ্গীর আলম। ইতিমধ্যে তিনি প্রার্থী হিসেবে প্রধানমন্ত্রীর গুডবুকে জায়গা করে নিয়েছেন।

এই আসন থেকে জাহাঙ্গীর আলম ছাড়াও বর্তমান এমপি এএইচ এম ইব্রাহিম, আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য খন্দকার রুহুল আমিন মনোনয়ন প্রার্থী রয়েছেন।

বর্তমান এমপি এএইচ এম ইব্রাহিম ২০১৮ সালে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বীতায় নির্বাচিত হওয়ার পর তৃণমূলের নেতাকর্মীদের সঙ্গে দূরত্ব সৃষ্টি হয়। তিনি এলাকায় খুব কম সময় দিতেন। ফলে তৃণমূল নেতাকর্মীরা এএইচ এম ইব্রাহিম থেকে মুখ ফিরিয়ে নেন। এমনটাই জানা গেছে তৃণমূলের একাধিক নেতাকর্মীর সঙ্গে কথা বলে।

অপরদিকে, তৃণমূলের নেতাকর্মীদের সময় দিয়ে এবং গত ১০ বছরে এলাকায় বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কর্মকাণ্ডের কারণে ব্যাপক জনপ্রিয়তা অর্জন করেন জাহাঙ্গীর আলম। তাছাড়া প্রধানমন্ত্রীর তহবিল থেকে দান-অনুদান ও ব্যক্তিগত পক্ষ থেকে এলাকার মানুষকে অকাতরে দান করেছেন জাহাঙ্গীর আলম। ফলে জাহাঙ্গীর আলমের পক্ষে একাট্টা আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীসহ সাধারণ মানুষ। প্রধানমন্ত্রীর দপ্তর থেকে গ্রীন সিগনাল পেয়েই তিনি নির্বাচনী মাঠে নামেন।

এছাড়া, নোয়াখালী-১ আসনটি বিএনপির ঘাঁটি। এখানে বিএনপি তথা ঐক্যফ্রন্ট থেকে ভোট করবেন সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সাধারণ সম্পাদক, বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব ও সাবেক এমপি ব্যারিষ্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন। বিগত দিনের উন্নয়ন কর্মকাণ্ডের কারণে ব্যারিষ্টার খোকনেরও এলাকায় ব্যাপক জনপ্রিয়তা রয়েছে। এদিক বিবেচনায় এখানে নৌকার প্রার্থীকে বিজয়ী করতে হলে জনপ্রিয় জাহাঙ্গীর আলমের বিকল্প নেই বলে মনে করেন দলের নেতাকর্মীরা।

চাটখিল পৌরসভার মেয়র মোহাম্মদ উল্যাহ পাটোয়ারী অবজারভার অনলাইনকে বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর আস্থাভাজন ও প্রিয় হওয়ায় তিনি জাহাঙ্গীর আলমের মাধ্যমে চাটখিল-সোনাইমুড়ী এলাকায় কোটি কোটি টাকার উন্নয়ন কাজ করেছেন। এখনো অনেক উন্নয়ন কাজ চলমান। এই উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে এমপি হিসেবে জাহাঙ্গীর আলমের বিকল্প নেই। জাহাঙ্গীর আলম নৌকা নিয়ে আসলে দল-মত নির্বিশেষে সবাই উনার জন্য কাজ করবেন। আমরা উন্নয়নের কৃতজ্ঞতা স্বরূপ প্রধানমন্ত্রীকে আমাদের আসনটি জাহাঙ্গীর আলমের মাধ্যমে উপহার দিতে চাই।

Share Button

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *