এবার নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রীর শ্লীলতাহানীর অভিযোগ, যুবক গ্রেফতার

নোবিপ্রবি প্রতিনিধি: নোয়াখালীর মাইজদীতে নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রীর শ্লীলতাহানীর অভিযোগে হৃদয় নামের এক যুবককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার সন্ধায় জেলা শহর মাইজদী শিল্পকলা একাডেমির পাশ থেকে হৃদয়কে গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতারকৃত হৃদয় ওই এলাকার আনোয়ার হোসেনের পুত্র।
জানা গেছে, বিশ্ববিদ্যালযের ওই ছাত্রী হৃদয়ের আত্মীয়কে প্রাইভেট পড়াতেন। এর সূত্র ধরে তাদের মধ্যে পরিচয় হয়। গত ২ এপ্রিল রাত ৯ টার দিকে ওই ছাত্রী প্রাইভেট পড়িয়ে বাসা থেকে বের হলে বাসার সামনে হৃদয় ছাত্রীকে কথা আছে বলে ডাক দেয়। রাত হওয়ায় ছাত্রী হৃদয়ের কথা না শুনে চলে যেতে চাইলে হৃদয় তাকে ঝাপটে ধরে। ধস্তাধস্তির এক পর্যায়ে ছাত্রী মাটিতে পড়ে যায়। এ ঘটনার পর ওই ছাত্রী ঢাকায় চলে যায়। মঙ্গলবার তিনি ফিরে এসে নোয়াখালী সদর থানায় লিখিত অভিযোগ করলে সন্ধায় পুলিশ শিল্পকলা একাডেমি এলাকা থেকে হৃদয়কে গ্রেফতার করে।
এ ব্যাপারে নোয়াখালী সদর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আনোয়ার হোসেনের সাথে আলাপ করলে তিনি বলেন, ছাত্রীর লিখিত অভিযোগ পাওয়ার পর পরেই আমার অভিযান চালিয়ে অভিযুক্ত যুবককে গ্রেফতার করি। তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।
নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি প্রফেসর এম ওয়াহিদুজ্জামান জানান, শ্লীলতাহানীর শিকার ছাত্রী আমাদের জানালে আমরা আইনগত ব্যবস্থা নেয়ার জন্য তাকে পরামর্শ দেই। তবুও বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন বিষয়টি খতিয়ে দেখবে।

Share Button

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *