মঠবাড়িয়ায় নির্বাচনী সহিংসতায় নিহত ৫

 মঠবাড়িয়া প্রতিনিধি : মঠবাড়িয়া উপজেলার ধানিশাপা ডিগ্রি কলেজ কেন্দ্রে নিহতদের পাশে স্বজনের আহাজারি

পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ার ধানিশাপা ইউনিয়নে নির্বাচনী সহিংসতায় ৫ জন নিহত ও অন্তত ৫ জন আহত হয়েছেন। মঙ্গলবার রাতে উপজেলার ধানিশাপা ডিগ্রি কলেজ মাঠ ভোট কেন্দ্রে এ ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন ফজলুল হক মাতুব্বরের ছেলে সোহেল (২৫), মজিদ হোসেনের ছেলে শাহাদাত হোসেন (৩০), সাইদুল মৃধার ছেলে কামরুল মৃধা (২৫), সোলায়মান (২৫) ও বেলাল হোসেন (২৮)।

এদের মধ্যে সোহেল ও শাহাদাত ধানিশাপা ইউনিয়নে আওয়ামী লীগ দলীয় প্রার্থী হারুন তালুকদারের ভাগিনা। নিহত অন্যরাও তার সমর্থক বলে জানা গেছে।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, ভোট শেষে ওই কেন্দ্রে গণনার এক পর্যায়ে হারুন তালুকদারের নৌকা প্রতীকের ৭৪৬টি ভোট চশমা প্রতীকের স্বতন্ত্র প্রার্থী রফিকুল ইসলামকে দিয়ে তাকে বিজয়ী করার খবর বের হয়।

এরপর হারুন তালুকদারের লোকজন ওই কেন্দ্র গিয়ে প্রতিবাদ জানালে উভয়পক্ষের লোকজনের মধ্যে সংঘর্ষ শুরু হয়।

এ সময় আওয়ামী লীগ দলীয় প্রার্থীর সমর্থকরা কেন্দ্রের ম্যাজিস্ট্রেট কাজী জিয়াউলকে অবরুদ্ধ করে রাখে। খবর পেয়ে পুলিশ, বিজিবি ও পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে গুলি চালায়।

এতে ঘটনাস্থলেই সোহেল, শাহাদাত ও কামরুল নিহত হন। এ ঘটনায় আহত হন আরও ৭ জন। আহতদের বরিশাল শের-ই বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে (শেবাচিম) নেয়ার পথে সোলায়মান ও বেলাল মারা যান।

বাকি আহতদের মঠবাড়িয়া ও শেবাচিম হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে। তবে তাদের নাম-পরিচয় জানা যায়নি।

পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের আসার পর ম্যাজিস্ট্রেট কাজী জিয়াউলকে উদ্ধার করে আইনশৃংখলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা।

এ ঘটনায় এলাকায় থম থমে অবস্থা বিরাজ করছে। ঘটনাস্থলে অতিরিক্ত পুলিশ ও র‌্যাব মোতায়েন করা হয়েছে।

Share Button

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *