জামায়াত নেতাদের ফাঁসির ইস্যু জাতিসংঘে তুলবে পাকিস্তান

অনলাইন ডেস্ক : বাংলাদেশে জামায়াতে ইসলামীর নেতাদের ফাঁসি দেয়ার ইস্যুটি জাতিসংঘের মানবাধিকার কাউন্সিলে উত্থাপন করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে পাকিস্তান।
শুক্রবার পাকিস্তানের পার্লামেন্টের উচ্চকক্ষ সিনেটে এ সিদ্ধান্তের কথা জানান প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরিফের পররাষ্ট্র বিষয়ক উপদেষ্টা সারতাজ আজিজ।

এর আগে জামায়াতের আমীর মতিউর রহমান নিজামীর ফাঁসি কার্যকরের ঘটনায় পার্লামেন্টের নিম্নকক্ষ অ্যাসেম্বলিতে আনা নিন্দা প্রস্তাবেও সদস্যরা বিষয়টি জাতিসংঘে উত্থাপনের দাবি জানিয়েছিলেন।

বাংলাদেশে জামায়াত নেতাদের ফাঁসি দেয়ায় দুঃখ প্রকাশ করে সিনেটে সারতাজ আজিজ বলেন, এ বিষয়ে মুসলিম বিশ্ব ও আন্তর্জাতিক সম্প্রদায় উদ্বেগ প্রকাশ করেছে।

ফাঁসির ঘটনাগুলোর প্রতি মনোযোগ দিতে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের প্রতি আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, ফাঁসি দেয়া মানবাধিকার এবং ১৯৭৪ সালে বাংলাদেশ, ভারত, পাকিস্তানের মধ্যকার ত্রিপক্ষীয় চুক্তির লংঘন।

সিনেটের নেতা রাজা জাফরুল হক বলেন, ‘বাংলাদেশে রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত হত্যাকাণ্ড ঠেকাতে মুসলিম দেশগুলোর যৌথ পরিকল্পনা নেয়া উচিত।’

সিনেট সদস্যরা বাংলাদেশ থেকে রাষ্ট্রদূত প্রত্যাহার করায় তুরস্ককে ধন্যবাদ জানান। এ বিষয়ে পাকিস্তানেরও জোরদার অবস্থান নেয়া উচিত বলে অভিমত দেন তারা।

একাত্তরের মানবতাবিরোধী অপরাধে গত মঙ্গলবার দিবাগত রাত ১২টা ১০ মিনিটে নিজামীর ফাঁসি কার্যকর করা হয়। এ ঘটনায় ইসলামাবাদ ও ঢাকায় পাকিস্তান ও বাংলাদেশের হাইকমিশনারকে পাল্টাপাল্টি তলবের ঘটনা ঘটে।

সূত্র: ডেইলি পাকিস্তান।

Share Button

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *