যুবদল নেতা অপহরণ, মামলা নেয়নি পুলিশ

সীতাকুণ্ড (চট্টগ্রাম) প্রতিনিধি: চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ডের ছলিমপুর থেকে যুবদলের এক নেতাকে অপহরণের অভিযোগ উঠেছে।

অপহৃত ওই নেতার নাম মোহাম্মদ শাহাদাৎ হোসেন ওরফে ছোটন (৪০)। তিনি ছলিমপুর ইউনিয়ন যুবদলের যুগ্ম সম্পাদক।

সোমবার দিবাগত রাত ১টার দিকে নিজের ভাড়া বাসা থেকে ছোটনকে তুলে নিয়ে যায় সন্ত্রাসীরা।

এদিকে তার পরিবার অভিযোগ করেছে, মঙ্গলবার সীতাকুণ্ড থানায় অভিযোগ দিতে গেলে পুলিশ অভিযোগ নেয়নি।

ছোটনের ভাই মো. মাসুদ যুগান্তরকে বলেন, সোমবার রাতে তার ভাই ঘুমিয়ে ছিলেন। এ সময় জঙ্গল ছলিমপুরের একটি সন্ত্রাসী বাহিনীর সদস্যরা তার ভাইকে ডাকাডাকি করে দরজা খুলতে বলে। পরে তারা দরজা ভেঙে ঘরে ঢুকে অস্ত্রের মুখে তার ভাইকে তুলে নিয়ে যায়। তার আশংকা- সন্ত্রাসীরা তার ভাইকে মেরে ফেলেছে।

মঙ্গলবার দুপুরে থানায় অভিযোগ দিতে গেলে পুলিশ অভিযোগ নেয়নি।

মাসুদ আরও জানান, তাদের বাড়ি সন্দ্বীপ উপজেলার হরিশপুর ইউনিয়নে। দীর্ঘদিন ধরে তাদের পরিবার সীতাকুণ্ডের ছলিমপুর বাংলাবাজার এলাকায় ভাড়া বাসায় বসবাস করছেন।

এ সুবাদে যুবদলের রাজনীতির সঙ্গে ছোটন জড়িয়ে পড়েন। পাশাপশি ওই এলাকায় সিঙ্গাপুরী নাছিরের একটি প্রকল্পের দারোয়ান হিসাবে কর্মরত ছিলেন তিনি।

রাজনৈতিকভাবে তার শত্রুতা থাকতে পারে। কিন্তু ব্যক্তিগতভাবে তার কোনো শত্রু ছিল না বলে জানান তার ভাই।

ছোটন ছলিমপুর ইউনিয়ন যুবদলের যুগ্ম সম্পাদক বলে জানিয়েছেন ওই ইউনিয়ন যুবদলের সভাপতি আনোয়ার হোসেন।

বুধবার রাতে আনোয়ার হোসেন যুগান্তরকে বলেন, ‘ছোটনকে তুলে নেয়ার পর কুপিয়েছে সন্ত্রাসীরা। যে পথে নিয়েছে পুরো পথেই রক্ত পড়া ছিল। দলের সিনিয়র নেতাদের বিষয়টি জানিয়েছি।’

সীতাকুণ্ড থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ইফতেখার হাসান যুগান্তরকে বলেন, ‘এ ধরনের অভিযোগ নিয়ে থানায় কেউ আসেনি। বিষয়টি শুনে বুধবার রাতে তাদেরকে ডেকেছি। বিস্তারিত জানার পর প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।’

Share Button

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *