চৌকস পুলিশ অফিসার সোনাইমুড়ী থানার ওসি মো. আবদুস সামাদ

ডেক্স রিপোর্ট: নোয়াখালীর সোনাইমুড়ী থানার অফিসার ইনচার্জ(ওসি) মো. আবদুস সামাদ একজন চৌকস পুলিশ অফিসার হিসেবে নিজেকে গড়ে তুলেতে সক্ষম হয়েছে। চাকরী জীবনে যে থানাতেই গেছেন সেখানেই নিজের কর্মদিনে উর্ধতন কর্তৃপক্ষ ও মানুষের মন জয় করার মাধ্যমে আশাতিত সাফল্যও পেয়েছেন। এই কর্মগুনেই তিনি ইতিমধ্যে বিভিন্ন সরকারি-বেসরকারী পদকে ভূষিত হয়েছেন। ওসি মো. আবদুস সামাদ পুলিশ একাডেমি, সারদায় ট্রেনিংকালে একাডেমির বেস্ট ক্যাডেট, রাষ্ট্রপতি পদক, আইজিপি ব্যাজ ও পুলিশ একাডেমি পদে ভূষিত হন। চাকরি জীবনে তিনি ২০০৬ সালে আইজিপি ব্যাচ, ২০০৭ সালে পিপিএম সেবা, ২০১২ সালে আবারও আইজিপি ব্যাচ, ২০০৯ সালে জাতিসংঘ পূর্ব তিমুর ও পূর্ব তিমুর রাষ্ট্রপতি পদক, ২০১৬ সালে জাতিসংঘ লাইবেরিয়া পদক প্রাপ্ত হন। তিনি ২০১৮ সালে ২০শে ডিসেম্বর সোনাইমুড়ী থানায় যোগদানের পর আইন-শৃংখলা রক্ষায় বিশেষ অবদানের জন্য ২০১৯ সালের মে মাসে সার্ক কালচারাল সোসাইটি ও সার্ক কালচারাল এওয়ার্ড ২০১৯ এবং জুলাই ২০১৯ইং শেরে বাংলা এ কে ফজলুল হক গবেষণা পরিষদ কর্তৃক শেরে বাংলা গোল্ডেন এ্যাওয়াড-২০১৯ প্রাপ্ত হন।
ওসি মো. আবদুস সামাদ এমন পদকে ভূষিত হওয়ায় ভবিষ্যতে তিনি কর্মে আরো উৎসাহী হয়ে দেশ ও জনগণের সেবায় করবেন এমনটাই মনে করেন সচেতন মহল।
এক প্রতিক্রিয়ায় সোনাইমুড়ী থানার অফিসার ইনচার্জ(ওসি) আবদুস সামাদ সংবাদ মাধ্যমকে জানান, চাকরীর শুরু থেকে মানুষের সেবা করার মাধ্যমে এগিয়ে যাচ্ছি। পেশাকে সেবা হিসেবে নিলে যে কোন কাজ সহজেই করা যায়। ওসি পদে থেকে সাধারণ মানুষের পাশে দাঁড়াতে পেরে নিজের কাছে ভালো লাগে। ভবিষ্যতেআরো এগিয়ে যেতে তিনি সকলের দোয়া ও সহযোগীতা কামনা করেন। ওসি মো. আবদুস সামাদ রাঙ্গামাটি জেলার এক সম্ভ্রান্ত মুসলিম পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন।

Share Button

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *