খুলনার শ্রেষ্ঠ ‘জয়িতা’ সৈয়দা নাহিদা হাবিবা

প্রতিনিধি: শিক্ষা ও চাকরিতে বিশেষ অবদানের জন্য খুলনা মহানগর ও জেলায় শ্রেষ্ঠ জয়িতা নির্বাচিত হয়েছেন বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের উপ-সচিব সৈয়দা নাহিদা হাবিবা। ‘জয়িতা অন্বেষণে বাংলাদেশ’ শীর্ষক কর্মসূচির আওতায় বৃহস্পতিবার দুপুরে খুলনা জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে তার হাতে সম্মাননা তুলে দেন খুলনার জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ হেলাল হোসেন। এসময় খুলনা মহানগর ও জেলা পর্যায়ের আরো ছয় শ্রেষ্ঠ জয়িতাকে সম্মাননা প্রদান করা হয়। অনুষ্ঠানের আয়োজক খুলনা জেলা প্রশাসন ও মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তর।

২০১৮-১৯ অর্থবছরে খুলনা জেলা পর্যায়ে পাঁচটি ক্যাটাগরিতে শ্রেষ্ঠ জয়িতা নির্বাচন করা হয়। সৈয়দা নাহিদা হাবিবা ছাড়াও অর্থনৈতিকভাবে সাফল্য অর্জনকারী ক্যাটাগরিতে জাহানারা বেগম, সফল জননী রোকেয়া বেগম, নির্যাতনের বিভীষিকা মুছে ফেলে নতুন উদ্যমে জীবন শুরুতে স্মৃতি বিশ্বাস এবং সমাজ উন্নয়নে সন্ধ্যা রাণী বিশ্বাসকে এই সম্মাননা জানানো হয়।

এছাড়া সিটি করপোরেশন এলাকায় শ্রেষ্ঠ জয়িতা নির্বাচিত হয়েছেন- অর্থনৈতিকভাবে সাফল্য অর্জনকারী সাবেরা মারজানা এবং সমাজ উন্নয়নে সন্ধ্যা রাণী বিশ্বাস।

অনুষ্ঠানে জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ হেলাল হোসেন বলেন, জয়িতাদের অবদান সমাজে ছড়িয়ে দিতে পারলে নারীরা আরও উৎসাহিত হবেন। সরকার নারীদের সকল ক্ষেত্রে অধিকার দিয়েছে। তৃণমূল থেকে উঠে আসা খুলনার পাঁচ হাজার নারীকে বিভিন্ন ট্রেডে প্রশিক্ষণ দিয়ে স্বাবলম্বী করা হবে।

অনুষ্ঠানে খুলনার অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) জিয়াউর রহমানের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি ছিলেন খুলনা জেলা পরিষদের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মো. আছাদুজ্জামান এবং জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের স্থানীয় সরকার বিভাগের উপপরিচালক ইশরাত জাহান। অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন মহিলাবিষয়ক অধিদপ্তরের উপপরিচালক নার্গিস ফাতেমা জামিন।

শ্রেষ্ঠ জয়িতা হওয়া অভিব্যক্তি প্রকাশ করতে গিয়ে সৈয়দা নাহিদা হাবিবা বলেন, আমি প্রজাতন্ত্রের একজন সেবক। সব সময় চেষ্টা করি নিজের সেরাটা দিয়ে কাজ করার জন্য। যখন সম্মাননা বা কাজের স্বীকৃতি পাই তখন কাজ করার অনুপ্রেরণা বেড়ে যায়। বেড়ে যায় দায়িত্ববোধ।’

এর আগে ২০১৬ সালে সৈয়দা নাহিদা হাবিবাকে প্রাথমিক শিক্ষায় বিশেষ অবদানের জন্য চট্টগ্রাম বিভাগের শ্রেষ্ঠ উপজেলা নির্বাহী অফিসার হিসেবে নির্বাচিত হয়েছিলেন। সে সময় শ্রেষ্ঠ উপজেলা নির্বাহী অফিসার হিসেবে প্রধামন্ত্রীর কাছ থেকে সম্মাননা গ্রহণ করেন।

Share Button

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *