নির্বাচনে নিহত আনসার সদস্যের পাশে সরকার

প্রতিনিধি:কেন্দ্র দখলে বাঁধা দেওয়ায় নোয়াখালী-৩ (বেগমগঞ্জ) আসনে ভোট কেন্দ্রে দায়িত্বরত অবস্থায় দূর্বৃত্তের গুলিতে নিহত বাংলাদেশ আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনীর সদস্য নূর নবীর পাশে দাঁড়িয়েছে সরকার।

নিহত আনসার সদস্য নূর নবীর মামাতো ভাই সামছু মিয়া জানান, ৭ভাই বোনের মধ্যে নূর নবী ছিল দ্বিতীয়। স্ত্রী নাছিমা আক্তার ও তিন মেয়েকে নিয়ে তার সংসার। বড় মেয়ে ছুমাইয়া আক্তার স্থানীয় আফাজিয়া বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে নবম শ্রেণিতে পড়ে। গত ১২ বছর থেকে গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনীতে কাজ করে আসছেন নূর নবী। যখন কাজ থাকতো না তখন ভ্যান চালাতেন তিনি। নির্বাচনী দায়িত্ব পালনের জন্য গত শনিবার বাড়ী থেকে বের হয়ে যান নূর নবী। তার অকাল মৃত্যুতে পরিবারটি অসহায় হয়ে পড়ে।

বাংলাদেশ আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনীর নোয়াখালী জেলা কমান্ডিং অফিসার সৈয়দ ইফতেহার আলী জানান, বাংলাদেশ আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনীর পক্ষ থেকে নিহত নূর নবীর স্ত্রী নাছিমা আক্তারকে এক লাখ টাকার একটি চেক প্রদান করা হয়েছে। এ সময় উপজেলা নির্বাহী অফিসার নুরুল আমিন, এসিল্যান্ড মোস্তফা জাবেদ কায়সারসহ প্রশাসনের উর্ধতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।
তিনি আরো জানান, দায়িত্বরত অবস্থায় যদি আমাদের দলের কোন সদস্য নিহত হয় তখন সরকারের পক্ষ থেকে তার পরিবারকে ৫লাখ টাকা অনুদান দেওয়া হয়। এই অনুদান নূর নবীর পরিবারও পাবে। এছাড়াও নোয়াখালী জেলা ও উপজেলা পরিষদের পক্ষ থেকে ৫০’হাজার ও বেগমগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তার পক্ষ থেকে ২০’হাজার টাকা নূর নবীর পরিবারকে দেওয়া হবে বলে জানানো হয়েছে। নিহতের বড় মেয়ে ছুমাইয়া আক্তারকে একটি চাকরির ব্যবস্থা করে দেওয়া হবে।

বেগমগঞ্জ থানার ওসি ফিরোজ আলম মোল্লা জানান, ঘটনায় একটি মামলার প্রস্তুতি চলছে। ইতিমধ্যে একজনকে আটক করা হয়েছে।

প্রসঙ্গত, ৩০ডিসেম্বর রবিবার একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন চলাকালে নোয়াখালী-৩ বেগমগঞ্জ আসনের গোপালপুর ইউনিয়নে তুলাচারা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে দায়িত্বরত ছিলেন নূর নবী। দুপুর পৌনে ১টার দিকে একদল দূর্বৃত্ত কেন্দ্র দখলের উদ্দেশ্যে তাতে হামলা চালায়। এসময় নূর নবীসহ দায়িত্বরত আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা তাদের বাধা দিলে হামলাকারীরা তাদের লক্ষ্য করে গুলি ছুঁড়লে গুলিবিদ্ধ হয়ে ঘটনাস্থলে আনসার সদস্য নূর নবী নিহত হয়। সোমবার দুপুরে নিহতের জানাজার নামাজ আমানউল্যা পুর ইউনিয়নের পশ্চিম জয়নারায়নপুর গ্রামের তার নিজ বাড়ীর সামনে অনুষ্ঠিত হয়। জানাজায় বাহিনীটির জেলা কমান্ডিং অফিসার সৈয়দ ইফতেহার আলী, সার্কেল এক্সুডেন্ট সোহেল রানা, বেগমগঞ্জ উপজেলা অফিসার ওম্মে সালমা, অফিসার প্রশিক্ষণ জসিম উদ্দিন, ইউপি চেয়ারম্যান আরিফুর রহমান, আনসার সদস্য ও স্থানীয় লোকজন উপস্থিত ছিলেন।

Share Button

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *