নোয়াখালীতে ফের পোশাক শ্রমিককে ধর্ষণের পর কুপিয়ে হত্যার অভিযোগ

প্রতিনিধিঃ নোয়াখালী সদরে ফের পারভিন আক্তার (১৯) নামের এক পোশাক শ্রমিককে ধর্ষণের পর কুপিয়ে হত্যার অভিযোগ পাওয়া গেছে। বুধবার রাতে উপজেলার ধর্মপুর ইউনিয়নের পূর্ব শুল্লকিয়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। নিহত
পারভিন ওই গ্রামের কৃষক জহুরুল হকের মেয়ে।

নিহতের বাবা জহুরুল হক জানান, তার মেয়ে চট্টগ্রামের একটি গার্মেন্টসে চাকরি করতো। গত তিন মাস পূর্বে বাড়ি আসে। গতকাল সন্ধ্যার পর মেয়ের মোবাইলে একটি কল আসলে মেয়ে ঘর থেকে বের হয়। অনেক সময় ধরে ঘরে না ফিরায় তিনি আশপাশে খুঁজতে গেলে বাড়ির পাশের একটি বাগানে রক্তাক্ত অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখে পুলিশে খবর দেন। কারা পারভিনের মোবাইলে কল করেছিলো তা তিনি নিশ্চিত ভাবে বলতে পারছেননা। কি কারণে পারভিনকে হত্যা করা হয়েছে তাও বলতে পারছেনা কেউ। নিহতের শরীরে বিদ্ধ অবস্থায় একটি ছুরি পাওয়া যায়।
এদিকে নিহত পারভিনকে ধর্ষণের পর হত্যা করা হয়েছে বলে নিহতের পরিবারের সদস্যরা ও এলাকাবাসী ধারণ করলেও পুলিশ বলছে ময়নাতদন্ত রিপোর্টের বিষয়টি পরিস্কার হওয়া যাবে।
নোয়াখালী সদর থানার ওসি আনোয়ার হোসেন জানান, পারভিনের মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মরদেহ নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। তাকে নিস্বংশভাবে কুপিয়ে হত্যা করা হয়েছে। খুনের কারণ উদঘাটন ও খুনিদের গ্রেফতারে পুলিশ কাজ শুরু করেছে বলেও জানান ওসি।

Share Button

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *